বুধবার, মে ২৫, ২০২২

Close

Home অন্যান্য ঢাকা নারায়ণগঞ্জে গামেন্টস কর্মীর হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জে গামেন্টস কর্মীর হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের এক বসতঘর থেকে হাত-পা বাঁধা মুক্তা বেগম নামে এক নারী গার্মেন্টস কর্মীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে মুক্তার স্বামী সোহাগ পলাতক রয়েছে।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) রাতে মিজমিজি পাগলা বাড়ি এলাকা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত মুক্তা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার খড়মপুর গ্রামের খাঁ বাড়ির খোকন মিয়ার মেয়ে। সে ও তার স্বামী দুইজনই গার্মেন্টস শ্রমিক ছিল।

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, রাতে নিহতের খালাকে স্বামী সোহাগ ফোন করে জানায়, তার স্ত্রী মুক্তাকে হত্যা করেছে সে। পরে মেয়ের চাচাকে বিষয়টি জানালে সে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তালা ভেঙে অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে।

ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহের জেরে হাত-পা বেঁধে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তালাবদ্ধ করে স্বামী সোহাগ পালিয়ে যায়। নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের স্বামীকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশের অভিযান চলছে।

 

ডেল্টামেইল/জেএ

দেশ বিদেশের নিত্য নতুন খবর পেতে দ্য ডেল্টামেইল পড়ুন, শেয়ার করুন 

আপনার মন্তব্য দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

- Advertisment -
  • সর্বশেষ
  • আলোচিত

সাম্প্রতিক মন্তব্য

স্বঘোষিত মহাপুরুষ on লকডাউন বাড়লো আরও একসপ্তাহ
জান্নাতুল ফেরদৌস on চিরবিদায় কিংবদন্তি কবরীর