শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১

Close

Home জাতীয় আমূল পরিবর্তন আসছে শিক্ষাক্রমে: শিক্ষামন্ত্রী

আমূল পরিবর্তন আসছে শিক্ষাক্রমে: শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানিয়েছেন, আমূল পরিবর্তন আসছে শিক্ষাক্রমে। ২০২৩ সাল থেকে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকে নতুন শিক্ষাক্রম চালু হতে পারে। বই ও পরীক্ষার ধরণ পাল্টাতে পারে। সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা উপস্থাপন করেন তিনি। পরে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান মন্ত্রী।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, ২০২৩ সাল থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত নতুন শিক্ষাক্রম চালু হতে পারে। এসএসসির আগে কোনো পাবলিক পরীক্ষা হবে না। এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার নাম ও ধরনে আসতে পারে পরিবর্তন। গ্রেডিং সিস্টেমে রদবদল আসবে। নবম-দশম শ্রেণি পর্যন্ত বিজ্ঞান-মানবিক-বাণিজ্য বিভাজন থাকছে না।

তিনি বলেন, তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত থাকছে না কোনো বার্ষিক পরীক্ষা। বই ও শিক্ষা কার্যক্রম পাল্টে যাবে। প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে তা কার্যকর হবে। ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলগুলোকেও তা মানতে হবে। ক্লাস মূল্যায়নের ভিত্তিতে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল দেওয়া হতে পারে।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, এ নিয়ে আমাদের আরও পরিকল্পনা রয়েছে। পঞ্চম শ্রেণির প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) এবং অষ্টম শ্রেণির জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষা থাকবে না। সাময়িক পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ষষ্ঠ শ্রেণিতে উন্নীত করা হবে। এইচএসসির ফল হবে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির ফল মিলিয়ে।

মন্ত্রী বলেন, ২০২২ সালে পরিমার্জিত শিক্ষাক্রমের পাইলটিং চলবে। আর ২০২৩ সালে শিক্ষাক্রম বাস্তবায়ন শুরু হবে। ২০২৫ সালের মধ্যে পর্যায়ক্রমে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষাক্রম বাস্তবায়ন করা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষাক্রমের খসড়ায় অনুমোদন দিয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন এবং কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

- Advertisment -
  • সর্বশেষ
  • আলোচিত

সাম্প্রতিক মন্তব্য

স্বঘোষিত মহাপুরুষ on লকডাউন বাড়লো আরও একসপ্তাহ
জান্নাতুল ফেরদৌস on চিরবিদায় কিংবদন্তি কবরীর