শনিবার, অক্টোবর ১৬, ২০২১

Close

Home এক্সক্লুসিভ শিশুদের অপুষ্টির হার বেড়ে দ্বিগুণ!

শিশুদের অপুষ্টির হার বেড়ে দ্বিগুণ!

সম্প্রতি শিশুদের পুষ্টিহীনতায় ভোগার হার বেড়েছে দ্বিগুণেরও বেশি। অপুষ্টি বাড়ায় ভবিষ্যতে নানা ধরণের শারীরিক জটিলতার আশঙ্কা চিকিৎসকদের। বাংলাদেশ শিশু হাসপাতাল ও ইনস্টিটিউটে প্রতিদিন চিকিৎসা নিতে আসে আড়াইশ থেকে ৩শ শিশু।

অভিভাবকদের আয় কমে যাওয়াকে অন্যতম কারণ উল্লেখ করে এটি মোকাবিলায় সমন্বিত পদক্ষেপ নেওয়ার তাগিদ বিশেষজ্ঞদের। চিকিৎসকরা বলছেন, সম্প্রতি কম ওজন ও পুষ্টিহীনতায় ভোগা শিশুর সংখ্যা বেড়েছে আশঙ্কাজনকভাবে। পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবারের অভাব এর জন্য দায়ী।

ক্রয়ক্ষমতা কমায় পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবারের দিকে মনোযোগী হতে পারছেন না সাধারণ মানুষ। এর প্রভাব পড়েছে শিশু স্বাস্থ্যে। এই ঘাটতি মোকাবিলায় দ্রুত পদক্ষেপের তাগিদ পুষ্টিবিদদের।

বর্তমানে পুষ্টি পরিস্থিতি উন্নতিতে মাঠপর্যায়ে কাজ নেই বললেই চলে। ১৯৯৬ সাল থেকে বাংলাদেশ জাতীয় পুষ্টি প্রকল্পও (বিআইএনপি) তারই ধারাবাহিকতায় ২০০৩ সাল থেকে জাতীয় পুষ্টি কার্যক্রম (এনএনপি) চালু ছিল ২০০৯ সাল পর্যন্ত। ১৬৭ উপজেলায় প্রায় ৪২ হাজার মাঠকর্মী পুষ্টি সেবা দিতেন।

স্বাধীন মূল্যায়নে দেখা গেছে, এসব উপজেলায় পুষ্টি পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছিল। কিন্তু সরকার মাঠপর্যায়ে পুষ্টি সেবা হঠাৎ বন্ধ করে দেয়। তিনি বলেন, ‘প্রশিক্ষণ ছাড়া মাঠপর্যায়ে সরকারের কার্যত কোনো পুষ্টি সেবা নেই। এটাই পুষ্টি পরিস্থিতি খারাপ হওয়ার অন্যতম কারণ।’

অপুষ্টি ও কম ওজনের শিশুর ভবিষ্যতে নানা জটিলতা দেখা দিতে পারে। এ কারণে শিশু স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সবাইকে সজাগ হবার আহ্বান জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

আপনার মন্তব্য দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

- Advertisment -
  • সর্বশেষ
  • আলোচিত

সাম্প্রতিক মন্তব্য

স্বঘোষিত মহাপুরুষ on লকডাউন বাড়লো আরও একসপ্তাহ
জান্নাতুল ফেরদৌস on চিরবিদায় কিংবদন্তি কবরীর