শুক্রবার, অক্টোবর ৭, ২০২২

Close

Home বিশেষ খবর ২শ বিষধর সাপের কামড় খেয়েও তিনি জীবিত!

২শ বিষধর সাপের কামড় খেয়েও তিনি জীবিত!

সাপ ভয় পায় না, এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুস্কর। অনেকে আছে সাপের ছবি পর্যন্ত দেখলেও শিউরে ওঠেন, তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনের বাসিন্দা টিম ফ্রেডি কিন্তু একেবারেই ব্যতিক্রম একজন। ফ্রেডি ৫২ বছর বয়সী এক ট্রাক চালক। যিনি সাপকে ভয় পাওয়া তো দূরের কথা, বরং সাপের বিষ গ্রহণেই যেন তার সাচ্ছন্দ্য।

অবাক লাগলেও তিনি এমনই। ইচ্ছে করে তিনি সাপের কামড় খেয়েছেন। তাও আবার একবার বা দুবার নয়, এখন পর্যন্ত প্রায় ২০০ এরও বেশি সাপের কামড় খেয়েছেন তিনি। কেউটে হোক, ভাইপার হোক বা ব্ল্যাক মাম্বা, গত ২০ বছরে তিনি দুশ’ বারেরও বেশি স্বেচ্ছায় বিষধর এসব সাপের কামড় খেয়েছেন।

এছাড়া, ৭০০ বার বিভিন্ন সাপের বিষ শরীরে ইনজেক্ট করেছেন। বিগত ২০ বছর ধরে সাপের বিষ নিচ্ছেন। ট্রাক চালানো ছাড়াও একটি ভয়ংকর শখ রয়েছে ফ্রেডির। বাড়িতেই বিশেষ কিছু বিষধর সাপ পুষেছেন তিনি। বিষাক্ত এই পোষ্য সাপের তালিকায় রয়েছে কেউটে সাপও।

বিষধর এই সাপের বিষে রয়েছে সাইটোটক্সিন যেটা তাৎক্ষণিক মৃত্যুর জন্য যথেষ্ট। তবে সেই সাপের বিষ নিজের দেহে প্রবেশ করিয়েও আজ দিব্যি সুস্থ তিনি। ফ্রেডির ভাষ্যমতে, পুরো পৃথিবীতে ৩০০০ এরও বেশি সাপের প্রজাতি রয়েছে। এরমধ্যে প্রায় ২০০ এমন সাপ রয়েছে যারা বিষধর ও তাদের কামড়ে মানুষের মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। ফ্রেডির হাতে কামড় নেওয়ার পর রক্ত ঝরেছে, হাত ফুলেছে, হয়েছে অসম্ভব যন্ত্রণা। দুএকবার পরিস্থিতি খারাপ হওয়ায় হাসপাতালেও ভর্তি হতে হয়েছিল তাকে।

যদিও তাতে থেমে যাবার চিন্তাও করেননি ফ্রেডি। তার মতে, শরীরে বিষ প্রবেশ করলে অ্যান্টিবডি তৈরি হয় যেটা পরবর্তীকালে সাপের কামড়ের থেকে বাঁচায়। যদিও এই পদ্ধতি একেবারেই অবৈজ্ঞানিক ও প্রাণের ক্ষেত্রে ঝুঁকিপূর্ণ।

 

ডেল্টামেইল/জেএ

দেশ বিদেশের নিত্য নতুন খবর পেতে দ্য ডেল্টামেইল পড়ুন, শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন

- Advertisment -
  • সর্বশেষ
  • আলোচিত

সাম্প্রতিক মন্তব্য

স্বঘোষিত মহাপুরুষ on লকডাউন বাড়লো আরও একসপ্তাহ
জান্নাতুল ফেরদৌস on চিরবিদায় কিংবদন্তি কবরীর